সুজিৎ সিংহ সুনা’র কবিতা কতোহান

FB_IMG_1596019888231ইমা উরে পেয়ার বানা

হাবিত্ত নুঙেই ইমার উরে থানি
গারগত দরিয়া লটকিয়া
ইমার উরহানাত বয়া থানি
ইমার উরে বয়া গুমে পরানি
হাবিত্ত নুঙেই ইমার উরে থানি

উরহানাত বয়া ইমার লগে গুজুরানি
ডাঙর অয়া ইমা তরে না’পাহুরানি
জরমর পিসে তরে আগে চিনেসু মি,
উহানলো অসত্ জগতে হাবিত্ত ডাঙর তি
মাত্ টাং নেয়া ইমা বুলিয়া ডাহৌরি
আহৌ আটহান হিন পাহুরিয়া
ইমা হারৌ অয়া কলকরৌরি।

আমি গাছ আকজারর ডেল দুগ অসি
ইমারাংত জিঙে বানা আর কুঙগৈ পাসি
ইমা বুলিয়া ডাকদিলে অউরী হারৌ
রাধারাণীরে ইমা নামাত্তারা
তেইরাং নেই কুনো হারৌ।

হারনেপেয়া গুজুরলু মি
ইমার উরহানাত বয়া,
মনে কুনো য়ারৌ নাকরিস ইমা,
হারনাপাউরী সৌ’গ বুলিয়া।

যত্নর পাহিয়া

মোর বানার কালা পাহিয়া আগরে পালেছিলু মোর মনে।
সেলকম্ কলা খওয়া খওয়া থছিলু পিন্জুরার ভিতরে।।
সময় আহান দুরেই দেশে গিয়া পাছিলু বানার পাহিয়ারে।
সারাদিন হান করলু যতন কুনো হিন নাদিয়া থছিলু মি মনে।।
অমাটিক্ বানা নুংশি কতি নিয়াম যতন তা নুঙেই না পেইলো।
পিন্জুরার ভিতরে থায়া কুম্বাকা বনে ফরদানি তা চেইলো।।
নুংশি নুংশি এলা দিয়া থার তা পিন্জুরার ভিতরে খেলেয়া।
তার এলা হুনিয়া বিভুর অয়া আছিলু মি হারৌ অয়া।
খালকরলু আকদিন য়াকরলো থানা পাহুরলো তার বন।
পাহুরেসু তার হিন হারনাপাসু  না চিনেসু পাহিয়ার মন।।
বানাপেয়া খুলেইলু মি পিন্জুরার দুওয়ার বিশ্বাস করিয়া।
গেলগা ফরদিয়া বন বিছারেয়া হাবিরে আধারে থয়া।।
ফরদিলো আধারর বনে মন পিন্জুরার দুওয়ার ভাগিয়া।
নীলুওয়া আকাশে ফরদিলো হুরকাং কালা যত্নর পাহিয়া।।
থাইল কোণ আগদে পরিয়া খালি পিন্জুরা আদর না পেয়া।
আহির পানি পুছে পুছে কাঁদিয়া হাবি আছি কাঁদাত বয়া।।
বানার কালা পাহিয়া ফরদিলো দুরেই বনে পাখহানি মেলিয়া।
উতা দুঃখই আজি মোর আহির পানি বাহের গুলাহান অয়া।।

কুঙগদে কুরাং যিতুগা মি

মি কুঙগদে কুরাং যিতুগা ?

হাবিগদে পাউরি হুদ্দা বাধা !
উত্তরে দেহৌরি পানি, যেপেইত্ মাছ হাতুরতারা।
মিতে হাতুরানি নুৱারৌরি,
উপেইত গেলেগা মি বুরিয়া মরতৌ।
মি সুপ বুরানি নামনাউরি।

মুঙেদে চেইতে দেহৌরি হাবি টেঙারা!
যেপেইত্ আসে হুদ্দা গাছর রাজত্ব,
উপেইত্ হমেয়া পথ পাহুরিয়া –
থানা লাগতৈ জঙ্গলে বুলিয়া।
মি জঙ্গলে বুলানির কা জরম নাসু?
না যিতৌ মি সুপ উগদে।

পিঠি বারাদে অক্সিজেন নেই!
উবেদে হুদ্দা ঘৃণা বার অভিশাপ ফরদের।
মি নিংশা তে কিসাদে কারতৌ?
অক্সিজেন লনার ক্ষমতা মরাং নেই,
উগদে গেলেগা মি ঘৃণ্য বার অভিশপ্ত অইতৌ।
উহানলো মি উগদেউ না-যিতৌগা?

দক্ষিণে দেহৌরি সমাধিসৌধ নরক হান!
উবায়া থানা পারানির ইঞ্চি আহানৌ খালি নেই,
উবারার মাটিত মানু প্রায় গুমিয়া আসি।
গুমজিলে তে কিসাদে মি আকাশ দেখতৌ?
মি আকাশ নাদেহিয়া থানা তে নারতৌ।

উতার চেয়ে মি পাহিয়া অয়া আকাশে ফরদিতৌ,
হাগহানাত্ গিয়া জুনাকর লগে মি থাইতৌ।

জীবন যাত্রার দশা

মুকু নেই! লিখনিগ’ল ইকরাত
লেপইলু মোর জনম।
কিতা লেখতু, কিসাদে লেখতু ? খংকুল নেই জনম এহানাত!
ইকরাত বয়া, দেহৌরি পারাপার অসে সরাহানাত
কল্পুক সৌৱয়া খলকিয়া আহের। মোর নিংশিং!
হাদি মেরাকে দেহৌরি ডাঙর বিট্টি আগ’
মোর উবেদে চেয়া রুসিয়া আহের।
তান্জা চেয়া দিন মেঘালা করিয়া,
দ্বৌ জিলকেয়া কালা বৌ-বরন আনের।
খেলতাম্ উহানাত থকেয়া গুমর মেরাকে
দেহৌরি মর হপন,
পানির সাদে মুকশি দিয়া দিয়া বাহিয়া যারগা।
উতা হাবি ডিগল বাহা আগত
কল্ঠ্ররং লাগেয়া,
দারৌর সাদে খমকরানি নিয়াম চিলসে!
মেঘালা দিনে পারাপার অসে গুলাহানাত।
খানি পিসে দেহৌরি জার্মানির সাদে,
বাহিয়া আহের মোর নিংশিং।
মুকু নেই ফানটেন্ গলো আরতে কতি ইকরে পারতৌ,
চে হানৌ তেঙনি অকরলো
লিখনিগৌ আর আগুৱানি হিনপেইলো।
তবুও না এরতৌ, সেংকরে মুকু দালিয়া জীবন-
যাত্রার কদম কারে কারে ইকরানি না খামৈতৌ।।

পৃথিবী ইমার প্রকৃতির এহান

পৃথিবী ইমার প্রকৃতি এহান চেইতে কতি হবা,
পাহিয়া কিচিমিচি রহিয়া, নুকুলতারা বিয়ান ফুৱইলে।
লিরি লিরি বৌ দের রাতি ফুৱইলে।।
ফুলে ফুলর কুরি সাতনি অকরের।
মুঙেদেত্ত বেলি  নুকুলিয়া আহের।।

পৃথিবী ইমার প্রকৃতি এহান চেইতে কতি হবা।
টেঙারার হাদিয়েদেত্ত জর-জরি হংকরের।
লতায় পাতায় বেলির পহরে, মুকশি মুকশি দের।
বাগান বাগানে নুংশি ফুল, সাতয়া মনহান মৌকরের।।
ঔ পৃথিবী ইমার প্রকৃতি এহান,
জ্ঞানী জীবর অজ্ঞানর কারণে
মিমুত্ অইতৈ আকদিন!

দেহানি না-মনেইলেউ?
দেহাত পরেসি আমি উসাদে দিন।
দিন আহান এরে প্রকৃতির লগে নাথাই তাঙাই,
আমার বিবেক বুদ্ধি হাবি মাঙকর তাঙাই।
দিন আহান গরে বিতরেত্ত, নুকুলে নারিয়া থাইতাঙাই।
ইনচিক্ চিক্ বনর সাদে,
জীব জন্তু হাবি আমার ফামে
তাপ্ক তাপ্ক আমার গর দুৱার হাবি কালকরতাই।
চারিবারা অইতৈ হুদ্দা গাছ গাছরা বার জন্তুর গর।
দিন আহান পারা বেলানিরকা কুনো খালি জাগা নাপেই তাঙাই?

দিন আহান চারিবারা হুদ্দা লতা পাতায় বেরেয়া দেখ তাঙাই!
এগদে হৌগদে হুনতাঙাই জন্তুর রৌ
পাহিয়া পাখ্ মেলিয়া, পানিত মাছ খেলিয়া, হুনতাঙাই গরে বাঘর রৌ।
দিন আহান মানু হাবির পাংকাল নেয়ইতৈ,
বিদ্যুৎ নিকালানির ক্ষমতাউ নাথাইতৈ, ল্যাম্প পষ্টে পহর নেয়ইতৈ।

আমারাং থাইতৈ হুদ্দা আকহান ভরসা,
সেন্দা অইলে ঝিন্-ঝিনির পহরর আশা।
উবাকা মনে পরতৈ অতীতর নুঙেইপা নিংশিং।
ঔ দিন হাবিয়ে য়ারৌ, লোভ, অহংকার বার বানা পাহুরতাঙাই।
উসাদে করিয়া হাবি এরে প্রকৃতি এহানাত্ত মুক্তি পেইতাঙাই?
দিন আহান এরে প্রকৃতির লগে আমি নাথাই তাঙাই !

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s